এসআই সৈয়দ ইমরোজ তারেককে অভিনন্দন

113

গত বুধবার ভোরে কক্সবাজারের টেকনাফে মুক্তিপণের নগদ ১৭ লাখ টাকাসহ পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সাত সদস্যকে আটক করে সেনাবাহিনী।  এমন সংবাদ দেশবাসীকে বেশ হতাশায় ফেলে দেয়।

পুলিশের উপর জনগণের ভরসা যখন ক্ষীণ তখন আইজিপি সম্মাননা পেলেন জকিগঞ্জ থানার এসআই সৈয়দ ইমরোজ তারেক।

স্কুলছাত্রীর উপর আক্রমণকারী বাহার উদ্দিন, আইসিটি মামলার আলোচিত আসামী রাকেশ রায়, ডাকাত রিয়াজ , লাকী হোটেলের কামাল আহমদ হত্যা মামলার আসামী জাকির হোসেন ও কলেজ ছাত্র সাইফুল ইসলামের ঘাতক এনাম উদ্দিনকে গ্রেফতারে রয়েছে ইমরোজ তারেকের ভূমিকা।

এসব সাহসী কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ২৮ অক্টোবর ‘১৭ কমিউনিটি পুলিশ দিবসে সিলেট জেলায় একমাত্র পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে আইজিপি কর্তৃক সনদ ও  সম্মাননা  ক্রেস্ট লাভ করেন   এসআই ইমরোজ।

সৈয়দ ইমরোজ তারেক মৌলভীবাজার  জেলার  রাজনগরের বাসিন্দা মরহুম সৈয়দ বদরুল হোসেন ও জেসমিন আক্তারের সন্তান। তার স্ত্রী ফেরদৌসি শাহনাজ সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রশিক্ষণ শাখা ও ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের ইনচার্জ। ২০০৩ সালে এমসি কলেজ হতে স্নাতকোত্তর শেষ করে  সৈয়দ ইমরোজ  ২০০৮ সালে এসআই পদে চাকরীতে যোগদান করেন।

সিলেট কোতওয়ালী থানা, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ, চট্রগ্রামের সাতকানিয়া থানায় এসআই হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে ২০১৬ সালের ২৫ আগস্ট জকিগঞ্জ থানায় এস আই(নিরস্ত্র) হিসেবে যোগদান করে অদ্যাবধি নিষ্ঠা ও সততার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন।

জকিগঞ্জভিউ২৪র পক্ষ থেকে সৈয়দ তারেক ইমরোজকে অভিনন্দন।

উপজেলাবাসীর যেকোন দুর্যোগে আইনি সহায়তা প্রদান করে নিজের সুনামকে আরোও সুউচ্চ করবেন এই প্রত্যাশা।